সিটি ব্যাংক পার্সোনাল লোন

সিটি ব্যাংক পার্সোনাল লোন নেওয়ার উপায়


যেকোনো প্রয়োজনে আপনার সমস্ত স্বপ্ন পূরণ করতে, নতুন উচ্চতায় পৌঁছাতে এবং আপনার দৈনন্দিন জীবনের যাত্রা আনন্দময় করতে সিটি ব্যাংকের ব্যক্তিগত লোন আর্থিক প্রয়োজন মেটাতে খুবই সহায়ক।


সিটি ব্যাংক পার্সোনাল লোন,সিটি ব্যাংক ব্যক্তিগত লোন,সিটি ব্যাংক লোন সুদের হার,সিটি ব্যাংক লোন,সিটি ব্যাংক লোন আবেদন ফরম,সিটি ব্যাংক হেল্পলাইন
সিটি ব্যাংক পার্সোনাল লোন



সিটি ব্যাংক পার্সোনাল লোন ঋণের বৈশিষ্ট্য:


• ঋণের পরিমাণ ১ লাখ টাকা থেকে ২০ লাখ টাকা পর্যন্ত দেয়া হয়। 


• ঋণের মেয়াদ ১২ থেকে ৬০ মাস বা ১ বছর থেকে ৫ বছর পর্যন্ত হয়ে থাকে।


কোনো গোপন চার্জ নেই কিন্তু প্রক্রিয়াকরণ ফি আছে।


প্রতিযোগিতামূলক সুদের হার।


২২ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে থাকতে হবে।


সিটি ব্যাংক পার্সোনাল লোন পাওয়ার যোগ্যতা:


বেতনভোগী এক্সিকিউটিভ: ন্যূনতম ১ বছর হতে হবে বর্তমান প্রতিষ্ঠানের সাথে।


পেশাদার: ন্যূনতম ২ বছরের অনুশীলন থাকতে হবে।


ব্যবসায়ীর ক্ষেত্রে ব্যাবসায়ের বয়স ন্যূনতম ৩ বছর থাকতে হবে। এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র থাকতে হবে।



মাসিক আয়ের মানদণ্ড:


• বেতনভোগী এক্সিকিউটিভ এর ক্ষেত্রে ২০,০০০ টাকা বেতন পেতে হবে সেলারী একাউন্টে। 


বাড়িওয়ালা ক্ষেত্রে ৩০,০০০ টাকা বাড়ি ভাড়া থেকে আয় থাকতে হবে।


• পেশাদার: ৫০,০০০ টাকা ইনকাম হতে হবে। ব্যবসায়ী ব্যক্তির জন্য ৫০,০০০ টাকা ইনকাম হতে হবে।



যে সকল কাগজ পত্র লাগবে সবার ক্ষেত্রে:


• আবেদন কারি এবং জামিন দারের ভোটার আইডি কার্ড বা স্মার্ট কার্ড এর ফটোকপি।


• আবেদন কারির তিন কপি ছবি লাগবে এবং জামিন দাতার দুই কপি ছবি লাগবে।


ভিজিটিং কার্ড/অফিস আইডি কার্ড দুজনেরই।


• আবেদন কারির টিন সার্টিফিকেট এর ফটোকপি ।


• সর্বশেষ পরিশোধকৃত ইউটিলিটি বিলের ফটোকফি।


• আগে যদি লোন নেয়া থাকে তার পেমেন্ট স্টেটমেন্ট এবং সেংশন লেটারের ফটোকপি।


• এছাড়াও আয়ের ভিন্নতার ক্ষেত্রে ভিন্ন ভিন্ন ডকুমেন্ট দিতে হবে।


Read more - Bank Asia all loan information



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)
নবীনতর পূর্বতন