ভাবসম্প্রসারণ লেখার নিয়ম

আমাদের দেশের কবি-সাহিত্যিকদের লেখায় কখনো কোনো একটি বাক্যে বা কবিতার এক বা একাধিক চরণে গভীর কোনো ভাব নিহিত থাকে। সেই ভাবকে বিস্তারিতভাবে লেখা, বিশ্লেষণ করাকে ভাবসম্প্রসারণ বলে। যে ভাবটি কবিতার চরণে বা বাক্যে প্রচ্ছন্নভাবে থাকে, তাকে নানাভাবে ব্যাখ্যা করতে হয়। সাধারণত সমাজ বা মানবজীবনের মহৎ কোনো আদর্শ বা বৈশিষ্ট্য, নীতি-নৈতিকতা, প্রেরণামূলক কোনো বিষয় যে পাঠে বা বাক্যে বা চরণে থাকে, তার ভাবসম্প্রসারণ করা হয়। ভাবসম্প্রসারণের ক্ষেত্রে রূপকের আড়ালে বা প্রতীকের ভেতর দিয়ে যে বক্তব্য উপস্থাপন করা হয়, তাকে যুক্তি, উপমা, উদাহরণ ইত্যাদির সাহায্যে বিশ্লেষণ করতে হয়।


ভাবসম্প্রসারণ লেখার নিয়ম,ভাবসম্প্রসারণ,ভাবসম্প্রসারণ লেখার কৌশল,ভাবসম্প্রসারণ লেখার নিয়ম hsc,ভাব সম্প্রসারণ লেখার নিয়ম,ভাবসম্প্রসারণ লেখার নিয়ম ssc 2022,ভাপসম্প্রশারন লেখার নিয়ম,ভাব সম্প্রসারণ লেখার কৌশল,ভাব সম্প্রসারণ লেখার সঠিক নিয়ম,hsc 2022 ভাবসম্প্রসারণ লেখার নিয়ম,বাংলা ভাব-সম্প্রসারণ লেখার নিয়ম,ভাবসম্প্রসারণ লেখার নিয়ম ssc,ভাব-সম্প্রসারণ লেখার টিপস,ভাব সম্প্রসারণ লেখার নিয়ম,ভাবসম্প্রসারণ লেখার নিয়ম class 8
ভাবসম্প্রসারণ লেখার নিয়ম

 

ভাবসম্প্রসারণ করার ক্ষেত্রে যেসব দিক বিশেষভাবে খেয়াল রাখতে হবে :

 

১. উদ্ধৃত অংশটুকু মনোযোগসহ পড়তে হবে।

 

২. অন্তর্নিহিত ভাবটি বোঝার চেষ্টা করতে হবে।

 

৩. অন্তর্নিহিত ভাবটি কোনো উপমা-রূপকের আশ্রয়ে নিহিত আছে কি না, তা চিন্তা করতে হবে।

 

৪. সহজ-সরলভাবে মূল ভাবকে ফুটিয়ে তুলতে হবে।

 

৫. মূল বক্তব্যকে প্রকাশরূপ দেওয়ার জন্য প্রয়োজনে যুক্তি উপস্থাপন করতে হবে। ছয়. বক্তব্যের পুনরাবৃত্তি যেন না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)
নবীনতর পূর্বতন